ঢাকা, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ জুলাই, ২০১৯ ০১:৫২

জয়ীর মুকুট মিতুকে উপহার দিয়েছে ভয়

অনলাইন ডেস্ক

 জয়ীর মুকুট মিতুকে উপহার দিয়েছে ভয়

গত বছর জুন মাসের কথা। ঠিক হয়, জাহারা মিতু বেসরকারি টিভি চ্যানেল নাগরিকের হয়ে বিশ্বকাপ ফুটবলবিষয়ক একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করবেন। মিতুর বাবা আর্জেন্টিনা দলের ভীষণ ভক্ত। তাই বাবাকে চমক দেওয়ার জন্য চুপিচুপিই সব সারছিলেন তিনি। কথা ছিল ১৪ জুন তাঁর বাবা খেলা দেখতে দেখতে মেয়েকে টিভি পর্দায় উপস্থাপনা করতে দেখে প্রথমে অবাক হয়ে যাবেন, তারপর গর্বে বুকটা ফুলে উঠবে। কিন্তু সব পরিকল্পনা কি আর বাস্তবায়ন সম্ভব হয়? ১৩ জুন বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতো হঠাৎ খবর এল, মারা গেছেন তাঁর বাবা। সৃষ্টিকর্তা যে তাঁর জন্য এমন বেদনাদায়ক মুহূর্ত রেখেছিলেন, তা কে জানত! 

তবে কোনো কিছুই যে ভাঙতে পারবে না জাহারা মিতুকে, সেটা তিনি বুঝিয়ে দিয়েছিলেন তখনই। পরদিন ফোনে জানালেন, ‘হ্যাঁ, আমার বাবা মারা গেছেন, আমার ফোনটা বন্ধ থাকবে। তবে আমি শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকব।’ বাবার মৃত্যুর পর স্থবির হয়ে যাননি মিতু। পরিকল্পনামতো প্রতিশ্রুতি দেওয়া সব কাজ শেষ করেছিলেন তিনি, সময়মতো গিয়েছিলেন শুটিংয়েও। তারপর বাবার কথা মনে করে কেঁদে বুক ভাসিয়েছেন। কিন্তু কাজটা আগে শেষ করেছেন। 

জাহারা মিতুর সময়জ্ঞানের প্রশংসা না করলেই নয়। এই আষাঢ়ে বৃষ্টির কারণে রাস্তায় যানজট অনেক হিসাবি মানুষকেও ফেলে দেয় মহাবিপাকে। কিন্তু মিতু ঠিকই নির্ধারিত সময়ের আগেই প্রথম আলো কার্যালয়ে পৌঁছে যান। সময়জ্ঞানের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাঁর কাছে ১ সেকেন্ডের মানে ১ সেকেন্ডই! পড়াশোনায় ছোটবেলা থেকেই বেশ এগিয়ে থাকতেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিন্যান্স বিভাগে পড়তে গিয়ে অনুভব করলেন, তিনি আসলে ফ্যাশন ডিজাইনার হতে চান। তাই সেখান থেকে ভর্তি হলেন বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজিতে। সেখান থেকে পড়াশোনা শেষ করে উচ্চতর পড়াশোনার জন্য বৃত্তি পেয়ে উড়াল দেন চীনে। ফিরে এসে একটি বেসরকারি পোশাক প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধান হিসেবে কাজ শুরু করেন। তিনি সুপারমডেল বাংলাদেশের বিজয়ী। মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের প্রথম রানারআপ এবং আরও অনেক কিছু। তাঁর ঝুলিতে সুন্দরী হিসেবে জেতা ‘মুকুট’–এর অভাব নেই। এখন পর্যন্ত প্রায় অর্ধশত নাটকে অভিনয় করেছেন, ৩টি ধারাবাহিকেও দেখা গেছে তাঁকে। দ্য রিপাবলিক ও বিবাহ হবে নাটক দুটির মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন তিনি। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ, বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব–১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ, ট্রাই ন্যাশন সিরিজ, বিপিএল আর এবার বিশ্বকাপ ক্রিকেটবিষয়ক একাধিক টিভি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করছেন তিনি। বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ ৫টি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে উপস্থাপক হিসেবে দেখা যাচ্ছে মিতুকে। করেছেন বেশ কয়েকটা মিউজিক ভিডিও। এবার তো সবচেয়ে বড় স্বপ্নটাও পূরণ হয়ে গেল। শাকিব খানের নায়িকা হিসেবে পেয়ে গেলেন কাজের সুেযাগ। জানা গেছে মিতু শাকিবের বিপরীতে আগুন নামের ছবিতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

সংক্ষেপে এই হলেন একের ভেতর অনেক জাহারা মিতু। খুব অল্প সময়ে অনেকটা পথ হেঁটেছেন তিনি। লক্ষ্য আকাশ ছোঁয়ার। ধূমকেতুর মতো দুম করে এলেন, দূর আকাশে একটু দেখা দিলেন, আর হঠাৎই হারিয়ে গেলেন—মোটেই সেই কাতারে পড়তে চান না তিনি। হতে চান ধ্রুবতারা। ২০১৭ সালে যেবার তিনি ‘সুপারমডেল’–এর তকমা জিতলেন, তখন জান্নাতুল পিয়া তাঁর মাথায় জয়ীর মুকুট পরিয়ে দিয়েছিলেন। মুকুট পরাতে গিয়ে পিয়া জানতে চেয়েছিলেন, ‘খুব খুশি, তাই না?’ জাহারা মিতু নাকি তখন উত্তর দিয়েছিলেন, ‘আমার ভয় লাগছে। এই মুকুটের ভার আমি বহন করতে পারব তো? এত দায়িত্ব এই কাঁধে নিয়ে ঠিকঠাক চলতে পারব তো?’